ফের ছাত্র সংঘর্ষের ঘটনা। উত্তপ্ত হয়ে উঠল রায়গঞ্জ বিশ্ববিদ্যালয়। চলল কয়েক রাউন্ড গুলি। অভিযোগের তির তৃণমূল ছাত্র পরিষদের বিরুদ্ধে। ঘটনায় গুরুতর আহত ছাত্র পরিষদ নেতা নব্যেন্দু ঘোষ। ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে বিশাল পুলিশবাহিনী। নামানো হয়েছে কমব্যাট ফোর্স। অভিযুক্তদের গ্রেফতারের দাবিতে শিলিগুড়ি মোড়ের ৩৪ নম্বর অবরোধ করল বাসিন্দারা। মঙ্গলবার রায়গঞ্জ জুড়ে বনধের ডাক দিয়েছে কংগ্রেস। ঘটনায় রিপোর্ট তলব করলেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়।

RU

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, সোমবার দুপুরে কলেজের মধ্যে ছাত্র পরিষদের জেলা সভাপতি নব্যেন্দু ঘোষকে লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়ে একদল যুবক। গুলি লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়। তখন তাঁর উপর হামলা চালায় ওই যুবকেরা। নব্যেন্দুর একটা হাত ভেঙে দেওয়া হয়। তাঁকে আহত অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

এই ঘটনার পর রায়গঞ্জের মূল রাস্তা অর্থাৎ শিলিগুড়ি মোড়ের কাছে ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে। এদিকে, তৃণমুল ছাত্র পরিষদের দাবি ছাত্র পরিষদেরই কেউ গুলি চালিয়েছে। এ দাবি নিয়ে তারা মোহনবাটি বাজারের কাছে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে। সেখানে ফের ছাত্র পরিষদের কোনও সদস্য গুলি চালিয়েছে বলেও অভিযোগ ওঠে।

Source: Kolkata24X7

Advertisements